জাতীয় মঞ্চ মাতাচ্ছে ৬ বাঙালি

সেজে উঠেছে মঞ্চ, ছড়িয়ে পড়েছে উন্মাদনা , ভারতের সবচেয়ে বড় সঙ্গীত প্রতিযোগীতা সা রে গা মা পা মঞ্চ মাতাবেন ভারতের  আনাচে কানাচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে এমন অনেক সঙ্গীত শিল্পী। নিজেদের প্রমাণ করার তাগিদে যারা সারাবছর একটা মাত্র সুযোগের অপেক্ষায় থাকেন। সুপারস্টার সব বিচারকেরা বিখ্যাত তিন গুরু চোখ জুড়ানো পারফমেন্সের সাক্ষী হয়ে থাকুন আপনিও ।

 

বর্তমানে গান শুধু গানই নয় তা সে যে ভাষারই হোক না কেন তার সাথে থাকে আবেগ । দেশ, কাল বেদ করে সময় ও সীমানা পেরিয়ে একমাত্র সুরের মূর্ছনাই পারে মানুষের মনকে ছুঁয়ে যেতে। অতিত ঠেকে গান  পুরোপুরি সাধনা আর চর্চার বিষয় ছিল ।

আর গানের জগতের এই নতুন নতুন প্রতিভাদের খোঁজে প্রতিবছর সঙ্গীতের মহাযুদ্ধের আয়োজন করে থাকে ভারতের  জি টিভির সারেগামাপা। এবছরেও অক্টোবর থেকেই শুরু হয়েছে জি টিভির সারেগামাপা  এর নতুন সিজন। আর এবছর জাতীয় স্তরের এই সঙ্গীতের মঞ্চে কার্যত বাঙালির সব জাইগায় চলছে জয়জয়কার। এবছর নতুন পুরনো উভয় প্রতিযোগিদের নিয়ে শুরু হয়েছে এই গানের রিয়ালিটি শো। ইতিমধ্যেই নিজ নিজ প্রতিভার গুণে তাঁরা সকলেই মন জয় করে নিয়েছেন বিচারকদের।

উল্লেখ্য চলতি সিজনের অডিশন রাউন্ড থেকেই দর্শকের নজর কেড়েছেন বাংলার বজবজের মেয়ে অনন্যা চক্রবর্তী । ভাটিয়ালি গানের জন্য এতদিন বাংলায় তাঁর বিশেষ ধরনের খ্যাতি ও সুনাম ছিল। এবার হিন্দি সারেগামাপার মঞ্চেও ভাটিয়ালি গেয়ে সকলের মন জয় করে নিয়েছে অনন্যা। এছাড়া টপ ১৬-এ নিজের জায়গা পাকা করেছেন ২০১৯ সালে বাংলা সারেগামাপায় দ্বিতীয় স্থান দখলকারী করেন স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক ।

এছাড়া রয়েছেন সারেগামাপা ২০১০-র প্রতিযোগী তথা বাংলার জনপ্রিয় গায়ক কিঞ্জল চট্টোপাধ্যায়ও । তবে টপ ১৬-র দৌড় থেকে ছিটকে পড়েছেন সারেগামাপার বাংলার গত সিজনের চূড়ান্ত পর্বের প্রতিযোগি বিদীপ্তা চক্রবর্তী ।এছাড়া রয়েছেন ‘দ্য ভয়েস ইন্ডিয়া কিডস’ খ্যাত আলিপুরদুয়ারের মেয়ে নীলাঞ্জনা রায় । পাশাপাশি বাংলা থেকে গিয়ে বিচারকদের মন জয় করে নিয়েছেন আরেক গায়ক দীপায়ন বন্দ্যোপাধ্যায় ।

উল্লেখ্য এবারের সারেগামাপায়ের মঞ্চে বিচারকের আসনে বসেছেন বলিউডের তিন দিগ্বজ মিউজিক কম্পোজার। রয়েছেন বিচারক বিশাল দাদলানি  , হিমেশ রেশামিয়া ও শঙ্কর মহাদেবন । এখন দেখার বাংলার এই ছয় প্রতিভা সঙ্গীতের এই জাতীয় মঞ্চে টিকে থাকার লড়াইয়ে নিজেদের কতদূর নিয়ে যেতে পারেন। জানা গেছে বাছাই পর্বের শেষে আগামী সপ্তাহ থেকেই টপ ১৬ নিয়ে পথচলা শুরু হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *