অটোপাস কে না বলছে অভিভাবকরা

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) অভিভাবক ঐক্য ফোরামের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গণমাধ্যমে  জানানো হয়ছে এ দাবি।

 

অভিভাবক ঐক্য ফোরামের দাবি জানিয়েছেন যে , প্রয়োজনে হলে বিষয় কমিয়ে নেওয়ার মাধ্যমে পরীক্ষা   ও মোট নম্বর ও সময় কমিয়ে প্রতি বিষয়ের জন্য ৫০ নম্বর নির্ধারণ করে এবং পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা বৃদ্ধির মাধ্যমে নিজ নিজ এলাকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা নিতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি না হলে বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খুলতে পারলে সরাসরি পরীক্ষা নেয়ার জন্য নভেম্বর মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। কোনোভাবেই অটোপাস দেয়ার ঘোষণা দেয়া যাবে না।

চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার মন্তব্যে অটোপাস না দিয়ে পরীক্ষার নেয়ার দাবি জানিয়েছেন অভিভাবকরা। সেক্ষেত্রে বিকল্পভাবে সৃজনশীল প্রশ্ন বাদ দিয়ে এমসিকিউ পরীক্ষা নেয়ার পক্ষে সম্মতি দেখিয়েছেন ।

১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর পর সব পাবলিক পরীক্ষা তথা এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা এভাবে নেয়া হয়েছিল বলে স্মরণ করিয়ে দেন অভিভাবকরা।

তাদের আলোচনা আরও বলা হয়, চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদেরকে জরুরিভিত্তিতে করোনা ভ্যাকসিন দেয়া প্রয়োছনাআর ভ্যাকসিন দেয়ার পরই যেন পরীক্ষার আয়োজন করা হোক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *